İstanbul nakliyat
07-01-2017
The 20th AGM of PGCB held


২০১৫-১৬ অর্থবছরে পাওয়ার গ্রীড কোম্পানী অব বাংলাদেশ লিঃ (পিজিসিবি) শেয়ারহোল্ডারদের জন্য নগদ ১২ শতাংশ ডিভিডেন্ড অনুমোদন করেছে। একই অর্থবছরে কোম্পানীর কর পরবর্তী মুনাফা হয়েছে টাকা ১২২.৬১ কোটি। আলোচ্য অর্থবছরে কোম্পানীর শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৬৬ টাকা। নিট অ্যাসেট ভ্যালু (এনএভি) ছিল ৭৬.৮৯ টাকা। ৭ জানুয়ারি ২০১৭ খ্রিঃ, শনিবার রাজধানীর বিদ্যুৎ ভবনের মুক্তি হল-এ অনুষ্ঠিত কোম্পানীর ২০তম বার্ষিক সাধারণ সভায় এসব তথ্য জানানো হয়।\r\nএজিএম-এ বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিপিডিবি) এর সঞ্চালন অবকাঠামো ও সম্পত্তির অবশিষ্ট মূল্য বাবদ সমপরিমাণ টাকার শেয়ার ইস্যূ করার প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে। এতে বিপিডিবি প্রতিটি ১০ টাকা মুল্যের ২৫,১৮,১৪,০০০ টি (২৫১.৮১৪ কোটি টাকার) শেয়ার অভিহিত মূল্যে পেয়েছে। ফলে পিজিসিবি-তে বিপিডিবি-র শেয়ার বেড়েছে। ইতিপূর্বে বিপিডিবি এই কোম্পানীর ৭৬.২৫ শতাংশ শেয়ারের মালিক ছিল।\r\nপিজিসিবি চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মূখ্য সমন্বয়ক (এসডিজি) মোঃ আবুল কালাম আজাদ বার্ষিক সাধারণ সভা পরিচালনা করেন। মাল্টিমিডিয়া উপস্থাপনা তুলে ধরেন পিজিসিবি ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুম-আলবেরুনী।\r\nঅনুষ্ঠানে জানানো হয়, পিজিসিবি সারাদেশে স্থাপিত বিভিন্ন বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রীডে সঞ্চালনের দায়িত্ব সুষ্ঠুভাবে পালন করছে। ২০১৫-২০১৬ অর্থবছরে পিজিসিবি ৪৬,৪১৩ মিলিয়ন কিলোওয়াট ঘন্টা বিদ্যুৎ সঞ্চালন করেছে, যা পূর্ববর্তী বছর হতে ১৫.৮৬% বেশী। বর্তমানে পিজিসিবি-র ১৫টি উন্নয়ন প্রকল্প চলমান রয়েছে। পরিকল্পনায় রয়েছে আরও ১৯টি প্রকল্প। প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন হলে সরকারের গৃহীত ভিশন ২০২১ অনুযায়ী আগামীতে উৎপাদিতব্য বিদ্যুৎ সহজে সঞ্চালন করা যাবে। অনুষ্ঠানে আরও জানানো হয়, সিএসআর খাতে ২০১৫-২০১৬ অর্থবছরে পিজিসিবি টাকা ১.৬০ কোটি ব্যয় করেছে।\r\nএজিএম-এ গত ৩০ জুন ২০১৬ সমাপ্ত হওয়া অর্থবছরে কোম্পানী নিরীক্ষিত লাভ-ক্ষতি হিসাব, স্থিতিপত্র, পরিচালকগণের প্রতিবেদন ও বহিঃনিরীক্ষকগণের প্রতিবেদন সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদন করা হয়েছে। চারজন স্বতন্ত্র পরিচালকের পুনঃনিয়োগও শেয়ারমালিকরা অনুমোদন করেছেন।\r\nসভায় পিজিসিবি-র পরিচালকবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মূখ্য সমন্বয়ক (এসডিজি) মোঃ আবুল কালাম আজাদ, বিদ্যুৎ বিভাগের সাবেক সচিব মনোয়ার ইসলাম, বিপিডিবি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী খালেদ মাহমুদ, আবু আলম চৌধুরী, প্রকৌশলী এস এম খাবীরুজ্জামান পিইঞ্জ, ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন, শেখ মোঃ আবদুল আহাদ, ড. এবিএম হারুন-উর-রশিদ, এ.কে.এম.এ. হামিদ, মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন এবং মাসুম-আলবেরুনী। পিজিসিবি-র কোম্পানী সচিব মোঃ আশরাফ হোসেন সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন।